বাংলার স্কুলে এগিয়ে এল গরমের ছুটি,আসতে হবে না টানা ২২ দিন, নয়া নির্দেশ

স্কুলে বাড়ল গরমের ছুটি। এগিয়ে এল ছুটি। কতটা সুবিধা হবে এতে?

ভোট বাজারে বেড়ে গেল গরমের ছুটি। এগিয়ে আনা হল স্কুলের গরমের ছুটি। ভোটের জন্যই মূলত গরমের ছুটি বাড়ল বলে মনে করা হচ্ছে। এবার ২২ দিন থাকবে গরমে ছুটি। এবার ৬ মে থেকে ২ জুন পর্যন্ত গরমের ছুটি থাকবে। অর্থাৎ আগে ৯ মে থেকে গরমের ছুটি পড়ার কথা ছিল। কিন্তু এবার সেই গরমের ছুটি কিছুটা এগিয়ে নিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নেওয়া হল বাংলার সরকারি ও সরকার পোষিত স্কুলগুলিতে।

মধ্য়শিক্ষা পর্ষদের নির্দেশিকা অনুসারে এই নয়া সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এর জেরে স্কুলগুলিতে আগেই ছুটি পড়ে যাবে। অর্থাৎ ৬ মে থেকেই স্কুলগুলিতে গরমের ছুটি পড়ে যাবে। আর সেটা টানা একেবারে ২২ দিন ছুটি পাওয়া যাবে।

একে তো গরমের তীব্রতা শুরু হয়ে গিয়েছে। তার উপর ভোটের উত্তেজনাও ক্রমশ বাড়ছে বঙ্গে। সব মিলিয়ে গরমের ছুটি এগিয়ে এলে আখেরে ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক-শিক্ষিকা সকলেরই সুবিধা হবে। কিন্তু প্রশ্নটা হল উত্তরবঙ্গের স্কুলগুলিতে যদি আগাম গরমের ছুটি পড়ল সেখানে আখেরে কতটা সুবিধা হবে। কারণ সেখানে ভোটও আগে। আর মে মাসে সেখানকার একাধিক জেলাতে বিরাট গরম পড়ে এমনটা নয়। সেক্ষেত্রে অসন্তোষটা থেকেই যেতে পারে। তবে সামগ্রিক পরিস্থিতিতে এই গরমের ছুটি এগিয়ে নিয়ে আসার জেরে স্বস্তি পাবেন বহু পড়ুয়া।

তবে এনিয়ে ভিন্ন মতও উঠে আসছে।

শিক্ষানুরাগী ঐক্য মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক কিংকর অধিকারী জানিয়েছেন, ৬ই মে আজ থেকে এক মাস পাঁচ দিন পর। এখন থেকে এইভাবে নোটিশ দেওয়াটা বাস্তবসম্মত নয় বলে মনে হয়। তেমন পরিস্থিতি হলে ছুটি আরো এগিয়ে আনতেও হতে পারে। আবার নাও হতে পারে। এত তাড়াতাড়ি ঘোষণা না করে পরিস্থিতির উপর নজর রেখে কয়েকদিন আগেই তা ঘোষণা করাই বাস্তব সম্মত ছিল।

এদিকে ১৯ এপ্রিল থেকে রাজ্য়ে প্রথম দফার লোকসভা ভোট। প্রথম দফার জন্য ১৬ থেকে ২০ এপ্রিল কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়িতে সব স্কুল বন্ধ থাকবে। ২৪-২৭ এপ্রিল দার্জিলিং, কালিম্পং, দুই দিনাজপুরে স্কুল বন্ধ থাকবে। তবে আগে গরমের ছুটি থাকত ১২ দিন। তবে এবার ভোটের জন্যও ব্যবহার করা হবে স্কুলগুলি। সেক্ষেত্রে সব মিলিয়ে ছুটির মেয়াদ বেড়ে ২২দিন হয়ে গেল। ৬ মে থেকে ২ জুন পর্যন্ত স্কুলগুলি বন্ধ থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *